Gold Price Today ঢাকা । গোল্ড প্রাইস ইন বাংলাদেশ টুডে প্রতি ভরি কত টাকা?

দেশে মূল্যস্ফিতির সাথে স্বর্ণের দামের বেশ একটি বড় সম্পর্ক রয়েছে-পূর্বে স্বর্ণই মূলত বিনিময়ের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত হত-সময়ের বিবতর্নে মানুষ কাগজের টাকা-কে মুদ্রা হিসেবে ব্যবহার করছে – Gold Price Today ঢাকা

সোনা এখন কত করে?– বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতি তাদের স্বর্ণের রেট ২২ ক্যারেট প্রতি গ্রাম ৮৪৯০ টাকা ধার্য্য করেছে। ফলে প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম কমে হয়ে গেল ১১.৬৬৪*৮৪৯০ = ৯৯,০২৭.৩৬ টাকা অর্থাৎ পূর্ব মূল্য ১০০,৭৭৬.৯৬ টাকা ফলে ১৭৪৯.৬০ টাকা মূল্য হ্রাস পেল। প্রতি ভরিতে স্বর্ণের দাম কমল ১৭৪৯.৬০ টাকা। স্বর্ণের বর্তমান দাম । বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি আজকের স্বর্ণের দাম ২০২৩

মূল্যস্ফিতির সাথে স্বর্ণের দামের সম্পর্ক কি? সোনার দাম মূল্যস্ফীতির একটি মৌলিক অংশ। মূল্যস্ফীতি হল অর্থের মূল্যের অপরিবর্তন প্রক্রিয়া, যেটি সাধারণভাবে মুদ্রার মাধ্যমে ঘটে। এটি আপেক্ষিক বা শীঘ্রস্থায়ী কারণে মোট মূল্যের পরিবর্তন সৃষ্টি করতে পারে, যা আরও অর্থ সাম্প্রতিকতায় আলোচ্য করে। স্বর্ণ একটি মূল্যমান ধাতু, যা বিশেষভাবে সোনার হিসেবে ব্যবহৃত হয়। সোনা প্রাচীন কাল থেকেই মানব সভ্যতার একটি মৌলিক অংশ হয়ে আসে এবং এটি আরও অনেক সময় ধরে মৌলিক অর্থত ব্যবহৃত হয়ে আসে।

মূল্যস্ফীতি এবং স্বর্ণের দামের সম্পর্ক সাধারণভাবে এই ভাবে যে, যদি মূল্যস্ফীতি অধিক হয়, তাহলে সোনার দাম বেড়ে যায়। অন্যদিকে, মূল্যস্ফীতি কম হলে স্বর্ণের দাম কম হতে পারে। এটি বাজারের অবস্থান, অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, সোনার বিপন্নতা এবং বাজারে আগাম অপ্রত্যাশিত ঘটনাগুলির সাথে সম্পর্কিত হতে পারে। এই সম্পর্কে অধিক বিস্তারিত জানার জন্য, আপনি অর্থনীতি এবং বাজারের পরিস্থিতি সম্পর্কে আরও তথ্য অনুসন্ধান করতে পারেন।

Gold Price Today টাঙ্গাইল । গোল্ড প্রাইস ইন বাংলাদেশ । ২৪ ক্যারেট গোল্ড প্রাইস ইন বাংলাদেশ

স্বর্ণের দাম ২০২৩ । দেশের বাজারে কমলো স্বর্ণের দাম ভরিতে ১৭৪৯.৬০ টাকা

Caption: Check official Website gold

স্বর্ণের দাম ২০২৩ । কোন কোন দেশে স্বর্ণ উৎপাদন হয়? । স্বর্ণ উৎপাদন পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ঘটতে পারে, তবে কিছু প্রধান স্বর্ণ উৎপাদন দেশগুলি নিম্নলিখিত হতে পারে

  1. চীন: চীন বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্বর্ণ উৎপাদক দেশের মধ্যে একটি। চীনে পেশাদার স্বর্ণ শৃংখলা রয়েছে এবং এটি বিশেষভাবে স্বর্ণ মুদ্রার উৎপাদনে জানা হয়। আস্ত্রেলিয়া: আস্ত্রেলিয়া পৃথিবীর প্রধান স্বর্ণ উৎপাদক দেশের একটি। ইয়াত্রা, কালগুলি এবং অন্যান্য উৎপাদনের পাশাপাশি স্বর্ণ উৎপাদনও বেশি করা হয়।
  2. রাশিয়া: রাশিয়া একটি গুরুত্বপূর্ণ স্বর্ণ উৎপাদক দেশ, যেখানে সাইবেরিয়ান অঞ্চলে বেশি পরিমাণে স্বর্ণ উৎপাদন হয়।
  3. আফ্রিকা: দক্ষিণ আফ্রিকা এবং গানা প্রধান স্বর্ণ উৎপাদক দেশের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত। আফ্রিকা প্রধানত গুহা স্বর্ণ উৎপাদনে পরিচিত।
  4. পেরু: পেরু দক্ষিণ আমেরিকার একটি প্রধান স্বর্ণ উৎপাদক দেশ, যেখানে স্বর্ণ খনন এবং প্রস্তুতকরণ বেশি হয়।
  5. ইন্দোনেশিয়া: ইন্দোনেশিয়া দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি প্রধান স্বর্ণ উৎপাদক দেশ, যেখানে গ্রেস স্বর্ণ উৎপাদনে পরিচিত।
  6. এটি মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে, স্বর্ণ উৎপাদনের পরিমাণ বছর থেকে বছর পরিবর্তিত হতে পারে এবং এটি প্রধানত খনন, প্রস্তুতকরণ এবং বাজারের পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে।

স্বর্ণ কিনে ঘরে রাখা কি ঠিক?

স্বর্ণ কিনে ঘরে রাখা একটি নির্ভরযোগ্য বিনিয়োগ হতে পারে, যদি আপনি এটি একটি পূর্ণতা অর্থিত নির্ণয়ে ব্যবহার করেন এবং আপনার আর্থিক লক্ষ্যের সাথে মিলিয়ে খাতির করেন। এটি আপনার নিজের আর্থিক পরিস্থিতি, বৃদ্ধির লক্ষ্য, নির্ধারিত ব্যয়ের সাথে মিলিয়ে খাতির করতে সাহায্য করতে পারে। তবে, স্বর্ণ কিনে ঘরে রাখার পর আপনার আর্থিক নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য কিছু মেয়াদী কাজ করতে গুরুত্ব দিতে পারেন।

22 KARAT Gold
CADMIUM (HALLMARKED GOLD) 8,490 BDT/GRAM
21 KARAT Gold
CADMIUM (HALLMARKED GOLD) 8,110 BDT/GRAM
18 KARAT Gold
CADMIUM (HALLMARKED GOLD) 6,950 BDT/GRAM
TRADITIONAL Gold
CADMIUM (HALLMARKED) 5,790 BDT/GRAM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *