E wallet Loan Option । সোনালী ব্যাংক ই ওয়ালেট লোন অ্যাপ দেখুন

সোনালী ই ওয়ালেটে ক্যাশলেস লেনদেন, ডিপিএস খোলা, ফিক্সড ডিপোজিট করা, চেক ছাড়া ব্যাংক হতে টাকা তোলা এবং লোন পরিশোধের সর্বশেষ অপশন চালু করা হয়েছে–Sonali e wallet Loan payment 2024

এখন লোনের কিস্তিও দেয়া যাবে? হ্যাঁ। এখন অ্যাপের মাধ্যমে আপনি সোনালী ব্যাংক হতে গৃহীত লোনের মাসিক কিস্তি পরিশোধ করা যাবে। আপনাকে লোনের কিস্তি পরিশোধের জন্য ব্যাংকে গিয়ে লোন একাউন্টে আর টাকা জমা দিতে হবে না। আপনি চাইলে সোনালী ই ওয়ালেট হতেই আপনি ব্যক্তিগত যে কোন ঋণের মাসিক কিস্তি পরিশোধ করতে পারবেন।

লোন অপশন পাচ্ছেন না? আপনার অ্যাপ আপডেট নাই। আপনার মোবাইলে ইনস্টল করা সোনালী ই ওয়ালেট অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর হতেই আপডেট বা হালনাগাদ করতে হবে। মোবাইল অ্যাপ হালনাগাদ করার পরই আপনি লোন অপশন দেখতে পারবেন।

এফডিআর খোলা যাবে? হ্যাঁ। সোনালী ই ওয়ালেটে টাকা জমা করে আপনি মোবাইলের মাধ্যমে ব্যাংকে না গিয়েই আপনি এফডিআর একাউন্ট খুলতে পারবেন। মেয়াদ শেষে অটো টাকা ব্যাংক হিসেবে জমা হবে বা চাইলে অটো রিনোয়াল অন করে রাখতে পারেন। অটো রিনুয়াল অন করে রাখলে মেয়াদ শেষ হলে পুনরায় এফডিআর একটিভ হয়ে যাবে।

কেউ কেউ বলছে লোনের কিস্তি তো অটো কেটে নেয়! / না। এটি এখন বন্ধ আছে আপনি অ্যাপের মাধ্যমে নিজে নিজেই ঘরে বসে পরিশোধ করতে পারবেন

এখন সোনালী ব্যাংক ই-ওয়ালেট অ্যাপ দিয়ে ঘরে বসে নিমিষেই লোনের কিস্তি পরিশোধ করুন দিনরাত 24 ঘন্টা। এজন্য অবশ্যই আপনার অ্যাপটি আপডেট করে নিন।

Caption: Sonali e wallet Loan Option after update

সোনালী ব্যাংক ই ওয়ালেট ২০২৪ । যে কারণে আপনি ই ওয়ালেট ব্যবহার করবেন

  1. ব্যালেন্স চেক– নিজ একাউন্টের ব্যালেন্স চেক করা এবং ব্যাংক স্ট্যাটমেন্ট চেক করা।
  2. ফান্ড ট্রান্সফার- যে কোন ব্যাংকের একাউন্টে টাকা প্রেরণ।
  3. এড মানি- একাউন্ট হতে ওয়ালেট এ টাকা আনা।
  4. সেন্ড মানি- ওয়ালেট হতে ওয়ালেট এ টাকা প্রেরণ, ওয়ালেট হতে একাউন্ট এ টাকা প্রেরণ, একাউন্ট হতে অন্য একাউন্ট এ টাকা প্রেরণ।
  5. ডিপিএস/ঋণের কিস্তি প্রদান-ব্যাংক স্টেটমেন্ট ক্রেডিট কার্ডের বিল, পেমেন্ট মােবাইল রিচার্জ ও বিবিধ ডিজিটাল সেবা।
  6. ডিপিএস এবং এফডিআর একাউন্ট খোলা- অনলাইনেই এখন মিলিওনিয়ার স্কিম সহ অন্য স্কিমগুলো খোলা যায় এবং এফডিআর করা যায় টাকা।

সোনালী ই ওয়ালেট ব্যবহার করে কিভাবে ব্যালেন্স চেক করবেন? 

প্রথমে আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে Sonali e wallet ইনস্টল করবেন। Signup ব্যবহার করে Application সম্পন্ন করবেন যেখানে ব্যাংক একাউন্ট নম্বর, এনআইডি, মোবাইল নম্বর, রাউটিং নম্বর ও ব্রাঞ্চ সিলেক্ট করে ৬ সংখ্যার পাসওয়ার্ড দিবেন। ব্যাংক হতে ম্যানুয়ালি বা সরাসরি যোগযোগ করে অ্যাপ আবেদন অনুমোদন করাবেন। এখন আপনি অ্যাপ মোবাইল নম্বর এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করবেন। One Click on Bank Balance । আপনাকে ব্যাংক ব্যালেন্স দেখানো হবে। যেহেতু এক হাজার টাকা ব্যালেন্স রাখতে হয় তাই এক হাজার টাকা কম দেখাবে।

https://technicalalamin.com/sonali-e-wallet-dps/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *